রাঙ্গুনিয়ায় পথচারীদের জুস ও পানি দিল এনএনকে ফাউন্ডেশন

চট্টগ্রামে টানা তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। তীব্র রোদ ও গরমে এবং বাতাসের আর্দ্রতা থাকায় ঘামও হচ্ছে। এতে কষ্ট পাচ্ছেন শ্রমজীবি ও কর্মজীবি সাধারণ মানুষ। এই তাপদাহ থেকে একটু স্বস্তি দিতে পথচারীদের মধ্যে জুস ও পানি বিতরণ করে আসছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি’র পারিবারিক দাতব্য প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশন। ইতিমধ্যেই চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন এলাকায় এই কর্মসূচী চালানো হয়েছে। এবার রাঙ্গুনিয়ার বিভিন্ন এলাকায় এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে পথচারীদের মধ্যে জুস ও পানি বিতরণ করা হচ্ছে। বুধবার (১ মে) দুপুরে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা সদরের ইছাখালী সিএনজি গ্যাস পাম্প এলাকায় বিতরণ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন এনএনকে ফাউন্ডেশনের সভাপতি এরশাদ মাহমুদ। পরে ইছাখালি, রোয়াজারহাট, মরিয়মনগর, লিচুবাগান, গোডাউন, গোচরা, শান্তিরহাটসহ উপজেলার বিভিন্ন জনসমাগম এলাকায় জুস ও পানি বিতরণ করা হয়।
এদিন বেলা দুইটার দিকে দেখা যায় রাঙ্গুনিয়ার রোয়াজারহাট এলাকায় পিকআপ ভ্যানে করে পথচারীর মধ্যে পানি ও জুস বিতরণ করা হচ্ছে। রিকশা ও অটোরিকশাচালকসহ পথচারীদের কাছে গিয়ে এক বোতল করে জুস ও পানি বিতরণ করতে দেখা যায়। তীব্র তাপদাহে শরবত ও পানি পেয়ে স্বস্তি প্রকাশ করেন স্থানীয়রা।
আমিনুর রহমান নামে এক পথচারী বলেন, শ্রমজীবি মানুষ গরমে অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন। এই সময়টা একটু পানি দরকার হয়। এভাবে রাস্তায় জুস ও পানি বিতরণ করছেন, এটা খুবই ভালো উদ্যোগ।
গোচরা এলাকার গাড়ি চালক মো.ইউনুস বললেন, মানুষ মানুষের জন্য ভাবছে এটা বড় কথা। এই সময়টা পথের মানুষের জন্য পানিটা খুবই জরুরি। যারা এমন কাজ করছে তাদের আল্লাহ মঙ্গল করুন।
এনএনকে ফাউন্ডেশনের সভাপতি এরশাদ মাহমুদ জানান, চট্টগ্রাম তথা রাঙ্গুনিয়ার দুর্যোগ-দুর্বিপাকে সুখে দুঃখে সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকে এনএনকে ফাউন্ডেশন। এর অংশ হিসেবে তাপদাহে অতিষ্ট মানুষকে কিছুটা স্বস্তি দিতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এনএনকে ফাউন্ডেশনের এই ধরণের মানবিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হবে বলে তিনি জানান