নাশকতার মামলায় যুবদল নেতা গ্রেফতার

হাটহাজারীতে ককটেল বিস্ফোরণ এবং নাশকতা মামলার পলাতক আসামি যুবদল নেতা মো. গিয়াস উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গিয়াস উদ্দিন (৩৬) উপজেলার উত্তর মাদার্শা এলাকার জহুরুল আলমের ছেলে।

তিনি মাদার্শা ইউনিয়ন যুবদলের আহ্বায়ক।
র‌্যাব জানিয়েছে, গত ২৯ অক্টোবর বিএনপির ডাকা অবরোধ চলাকালে রাত ১১টায় চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কে কতিপয় দুষ্কৃতকারী সরকারবিরোধী স্লোগান দিয়ে লাঠি-সোটা, লোহার রড ইত্যাদি নিয়ে রাস্তায় যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি, সাধারণ জনগণের মাঝে ভয়-ভীতির উদ্দেশ্যে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়।

এ সময় জিসান চৌধুরী নামের এক ব্যক্তিকে হাটহাজারী পৌরসভার মুন্সি মসজিদের সামনে হাটহাজারী থানা এবং পৌরসভা বিএনপির নেতাকর্মীরা পথরোধ করে এলোপাথারি মারধর করে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে নাশকতাকারীরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত জব্দ করে। এ ঘটনায় জিসান চৌধুরী বাদী হয়ে হাটহাজারী থানায় ৩৫ জনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামা ৭০ থেকে ৮০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।
র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো.নুরুল আবছার জানান, নাশকতা মামলার সন্দিগ্ধ পলাতক আসামি মো. গিয়াস উদ্দিন হাটহাজারী থানার ইস্টার্ন শপিং সেন্টার এলাকায় অবস্থান করার গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেলে পৌনে পাঁচটার দিকে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অবরোধ কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সড়কে যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি, ভাঙচুর, ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা সৃষ্টি এবং জিসান চৌধুরীকে মারধর করে বলে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। তাকে হাটহাজারী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।