বার্মার বন্দুকের গুলি আমাদের গায়ে লাগাটা ভালো লক্ষণ না: ড. ইউনূস

মিয়ানমারের বন্দুকের গুলি যখন গায়ের উপর লাগছে, ঘরের কাছে পড়ছে, এটা খুব ভালো লক্ষণ নয়। বাংলাদেশের সীমান্তে বলে মিয়ানমারে সৃষ্ট সংকটের জন্য আমরা বহুলভাবে সাফার করবো।

শুক্রবার ‘ডয়চে ভেলে খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়’ অনুষ্ঠানে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে শান্তিতে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস এমন মন্তব্য করেছেন।

ড. ইউনূস মনে করেন, “এটা একটা ব্যাপক বিষয়, বড় বিষয়। শুধু রোহিঙ্গা না, পুরো বার্মা বা পুরো মিয়ানমারই একটা জটিল জিনিস। বাংলাদেশের সীমান্তে বলে এটার জন্য আমরা বহুলভাবে সাফার করবো।”

এই সংকট থেকে উত্তরণের পথও বাতলে দিয়েছেন ড. ইউনুস, “এখন থেকেই ঠিক করতে হবে, আমরা কিভাবে এটার নিষ্পত্তি করতে পারি। যারা পৃথিবীর বিভিন্ন নীতিমালা গ্রহণ করেন এগুলো সমাধানের জন্য…সেই উদ্যোগটা আমাদের নিতে হবে। আমরা শুধু দর্শক হিসেবে থেকে গেলে হবে না। আমাদের একটিভ একশনে যেতে হবে।”

ঘরের কাছে এসে বন্দুকের গুলি যখন আমাদের গায়ের উপর লাগছে, আমাদের ঘরের কাছে পড়ছে, এটা খুব ভালো লক্ষণ না- এমন মন্তব্য করে ড. ইউনূস বলেন, কাজেই লক্ষণ থাকতে থাকতেই এটা সমাধানের জন্য যে পরিমাণ উদ্যোগের দরকার, সেই পরিমাণ উদ্যোগ আমাদের নিতে হবে।