চট্টগ্রামে আঞ্চলিক ঘাঁটি স্থাপনের পরিকল্পনা বাংলাদেশ বিমানের

বাংলাদেশ বিমান সিলেট ও চট্টগ্রামে হ্যাঙ্গার, ইঞ্জিনিয়ারিং ও ক্যাটারিং সহায়তায় আঞ্চলিক ঘাঁটি স্থাপনের পরিকল্পনা করছে। বর্তমানে বিমানের দূরপাল্লার ওয়াইড বডি বিমানগুলো ঢাকা থেকে সিলেট ও চট্টগ্রামে নগরগুলোকে দূরবর্তী আন্তর্জাতিক গন্তব্যের সঙ্গে যুক্ত করতে স্বল্পদূরত্বে ফ্লাইট পরিচালনা করে ইঞ্জিন সাইকেল নষ্ট করছে বলে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিমানের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও শফিউল আজিম রাজধানীতে এভিয়েশন সাংবাদিকদের সঙ্গে এক ইন্টারেক্টিভ অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আজিম বলেন, বিমান রাজধানীর পূর্বাচল এলাকায় দশ বিঘা জমিতে একটি অত্যাধুনিক ফ্লাইট সিম্যুলেটর প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। তিনি বলেন, ‘স্থানীয়ভাবে সিম্যুলেটর প্রশিক্ষণ সুবিধা থাকলে আমরা বিমান ও অন্যান্য এয়ারলাইন্সের পাইলটদের প্রশিক্ষণ দিতে সক্ষম হব। এতে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হবে।’ আজিম আরও জানান, ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে আধুনিক ‘বিমান কল সেন্টার’ উদ্বোধন করা হবে।

এছাড়া স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আগামী ২৬ মার্চ থেকে দীর্ঘ ১৫ বছর পর ঢাকা-রোম-ঢাকা ফ্লাইট পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বিমানের চলমান আন্তর্জাতিক রুট সম্প্রসারণ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে আমরা আগামী মার্চ থেকে রোমের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।