পটিয়ায় ধাওয়া খেয়ে অবরুদ্ধ সামশুল, পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার

নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের রোষানলে পড়েছেন চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সামশুল হক চৌধুরী।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী সামশুল হক চৌধুরী পটিয়া উপজেলার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের পিংগলা শেখ পাড়া গ্রামে গণসংযোগ করতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় নৌকার সমর্থক ও এলাকার ক্ষুদ্ধ লোকজন সামশুল হককে ধাওয়া করেন এবং অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন।
এসময় প্রার্থীর গাড়িসহ ৫/৭টি গাড়ির চাকা ফাটিয়ে পাংচার (অকেজো) করে দেন বিক্ষুদ্ধ জনতা।

জানা যায়, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটিয়া আসনে তিন বারের সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীকে বাদ দিয়ে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরীকে নৌকার মনোনয়ন দেওয়া হয়।

পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ডি এম জমির উদ্দিন বলেন, পটিয়ার মাটি আওয়ামী লীগের ঘাঁটি। এ সংসদীয় আসন পর পর তিনবার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। এবার স্বয়ং দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিতর্কিত বর্তমান সংসদ সদস্যকে আর দলীয় মনোনয়ন না দিয়ে তৃণমূল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিক মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরীকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন।

গত ১৫ বছরে সামশুল হক চৌধুরী দলীয় নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন করেছেন, মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানিসহ বিভিন্ন কারণে দলীয় লোকজন ছিল ক্ষুদ্ধ। দলীয় মনোনয়ন না পাওয়া সামশুল হক চৌধুরী স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে বুধবার বিকেলে প্রচারণা চালাতে গেলে স্থানীয় নেতাকর্মীদের রোষানলের শিকার হন। একপর্যায়ে প্রার্থী ও তার সমর্থিত লোকজনকে ধাওয়া করে নেতাকর্মীরা।

পটিয়া থানার (ওসি) নেজাম উদ্দীন বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ঐ এলাকায় গণসংযোগে গেলে কিছু লোকজন বাধা দিয়েছেন বলে শুনেছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।