দীর্ঘ ৪৫ বছর হাটহাজারীবাসীর সাথে ছিলাম-আছি:আনিস

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রথম নির্বাচনী সভায় ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, আমি দীর্ঘ ৪৫ বছর হাটহাজারীবাসীর সাথে ছিলাম এবং আছি। হাটহাজারী আজ সন্ত্রাসী মুক্ত ও শান্তির জনপদে পরিণত হয়েছে: আনিস আমরা চাই একটি সুন্দর, নিরপেক্ষ, গ্রহণযোগ্য ভোটের মধ্যে দিয়ে জাতি কে একটি নির্বাচন উপহার দেব: আনিস মো: মহিন উদ্দিন, হাটহাজারী(চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হাটহাজারীতে প্রথম নির্বাচনী প্রচারণা সভায় সাবেক সাংসদ ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি বলেন, আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। সেই নির্বাচনের প্রথম নির্বাচনী সভা শুরু করছি। সেই লক্ষ্য আমি দীর্ঘ ৪৫ বছর হাটহাজারীবাসীর সাথে ছিলাম এবং আছি। মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে হাটহাজারী পৌরসভার বাসস্ট্যান্ডে মোড়ে আয়োজিত নির্বাচনী প্রচারণা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন। ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি বলেন, আমি চেষ্টা করেছি আপনাদের সাথে থাকার জন্য! আমি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই যখনই আপনাদের কাছে এসেছি, তখনই আপনারা আমাকে সাদরে গ্রহণ করেছেন। আমি ৬ বার এই হাটহাজারী থেকে নির্বাচন করেছি। আমি এবার সপ্তম বারের মতো আবারও আপনাদের কাছে এসেছি। তিনি বলেন, হাটহাজারী আজ সন্ত্রাসী মুক্ত ও শান্তির জনপদে পরিণত হয়েছে । যেখানে খুন, রাহাজানি আজ প্রায় নেই বললেই চলে। আজ মানুষ তার জীবনের নিশ্চয়তা নিয়ে বাস করছেন। সাবেক সাংসদ বলেন, আজকে হাটহাজারী উন্নয়নের রুল মডেল হিসেবে পরিণত হয়েছে। আমরা আজকের হাটহাজারীর প্রত্যন্ত ইউনিয়ন এলাকার রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করেছি। কেননা এক সময় যে এলাকায় গাড়ি চলাচল করতে পারতো না আজকে সেই এলাকায় রিকশা গাড়ি চলাচল করছে। তিনি বলেন, আজকে আমরা হাটহাজারী উপজেলায় প্রত্যেক বিদ্যালয়ে নতুন ভবন দিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করেছি। তিনি বলেন, আজকে হাটহাজারী থেকে প্রায় ৫০০ ছেলে মেয়ে কে চাকরি দিয়েছি। এছাড়াও ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কে ১০০ শয্যা উন্নত করব। তিনি বলেন, আমাদের প্রধান সমস্যা হলো এই হাটহাজারী বাসস্ট্যান্ডের যানজট। যা আমি নির্বাচিত হলে প্রায় সাড়ে ৫০০ কোটি টাকা ব্যয়ে হাটহাজারী বাসস্ট্যান্ডে ফ্লাইওভার করে যানজট মুক্ত করব ইনশাআল্লাহ। সাবেক সাংসদ ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ আরও বলেন, এই বার বাংলাদেশে একটি দৃষ্টান্তমুলক নির্বাচন করব। এই নির্বাচনে মানুষ তার ভোটের অধিকার যাতে প্রয়োগ করতে পারে সে ব্যবস্থা করা হবে। সেখানে কোন ভোট ছিনতাই, ভোট জালিয়াতি, ভোট কেন্দ্র দখল এগুলো করতে দেব না। আমরা চাই একটি সুন্দর, নিরপেক্ষ, গ্রহণযোগ্য ভোটের মধ্যে দিয়ে জাতি কে একটি নির্বাচন উপহার দেব। হাটহাজারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মিন্টুর সঞ্চালনায় আয়োজিত নির্বাচনী সভায় বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ইউনুস গণি চৌধুরী, সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আলহাজ্ব মনজুরুল ইসলাম চৌধুরী, সদস্য শাহনেওয়াজ চৌধুরী, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুরুল আলম, হাটহাজারী পৌরসভার সহায়ক কমিটির সদস্য আলী আজম চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন, পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহেদসহ অনেকেই।