ছাত্রকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

কোতোয়ালী থানার সিরাজউদ্দৌলা সড়কের সাব এরিয়া এলাকার একটি মাদরাসায় ১২ বছরের এক ছাত্রকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক মো. জোবাইর হোসেনকে (২৮) গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) রাতে জয়নাব কলোনির ভেতরে একটি মাদরাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার মো. জোবাইর হোসেন রাঙ্গুনিয়া থানার কোদালা দক্ষিণ পাড়া মৌজার বাপের বাড়ির শামসুল আলমের ছেলে। তিনি সাব এরিয়ার জয়নাব কলোনির হজরত জয়নাব হেফজুল কোরআন নুরানি মাদরাসার প্রধান শিক্ষক। ভুক্তভোগী ছাত্রের বাড়ি বোয়ালখালী উপজেলায়। বাসা নগরের বাকলিয়ায় এলাকায়।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, নগরের কোতোয়ালী থানার সিরাজউদ্দৌলা সড়কের সাব এরিয়া জয়নাব কলোনির আবাসিক মাদরাসাটিতে হেফজ ও বাংলা- দুই মাধ্যমে পড়ালেখা হয়। আক্রান্ত ছাত্রটি ওই মাদরাসায় থেকে হেফজ শ্রেণির পাশাপাশি বাংলা মাধ্যমে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে। গত ১১ নভেম্বর থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত প্রধান শিক্ষক জোবাইর হোসেন তাকে ফুসলিয়ে নিজের রুমে নিয়ে কয়েকবার পাশবিক নির্যাতন করে। নির্যাতনের ফলে গত মঙ্গলবার সকালের দিকে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এরপর প্রধান শিক্ষক নিজেই তার বাবাকে মোবাইলে কল করে ছেলের অসুস্থতার কথা জানান ও তাকে নিয়ে যাবার জন্য বলেন। বাসায় গিয়ে ছেলেটি তার মা-বাবাকে অসুস্থ হয়ে পড়ার কারণ জানায়। এরপর তার মা থানায় গিয়ে ওই শিক্ষককে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির জানান, একটি মাদরাসায় ১২ বছরের এক মাদরাসা ছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগে মো. জোবাইর হোসেন (২৮) নামে শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ছাত্রের মায়ের দায়ের করা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।